রাখীর বিরুদ্ধে তনুশ্রীর মানহানির মামলা

বিনোদন সর্বশেষ

 

অনলাইন ডেস্ক ॥ নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলার পর তনুশ্রী দত্তকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেন বলিউডের ‘সমালোচিত’ নায়িকা রাখী সাওয়ান্ত।

নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ মিথ্যে, এমনই দাবি করে তনুশ্রীর বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমে বক্তব্য দেন রাখী। তখন তিনি দাবি করেন তনুশ্রী দত্ত ‘নেশাগ্রস্ত’ ছিলেন। এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার (২২ অক্টোবর) রাখীর বিরুদ্ধে ১০ কোটি রুপির মানহানির মামলা দায়ের করেছেন তনুশ্রী। রাখীর বিরুদ্ধে দেওয়ানী ও ফৌজদারি দুই ধরনের মামলাই করেছেন তিনি।

২০০৮ সালে তনুশ্রী দত্ত ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ সিনেমা থেকে বেরিয়ে গেলে, সেই জায়গায় আইটেম গানের দৃশ্যে সুযোগ পান রাখী সাওয়ান্ত। আর এই সিনেমার আইটেম নাচের শুটিং চলাকালীন নানা পাটেকর যৌন হেনস্তা করেছেন বলে দাবী করেন তনুশ্রী। সঙ্গে কোরিওগ্রাফার গণেশ আচার্যকেও অভিযুক্ত করেছেন ‘আশিক বানায়া আপনে’খ্যাত এই অভিনেত্রী।

তনুশ্রীর আইনজীবী নিতিন সাতপুতে এ প্রসঙ্গে বলেন, তনুশ্রীকে উদ্দেশ্য করে একাধিক অপমানজনক মন্তব্য করেছেন রাখী। এর জবাব তাকে আদালতে দিতে হবে। তা দিতে না পারলে রাখীকে দুই বছরের সাজা, জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডই হতে পারে।

তনুশ্রীর তোলা যৌন হয়রানির অভিযোগের পর ‘মিটু’ ঝড়ে নাম এসেছে বলিউডের অনেক নামীদামী তারকার। সে তালিকায় রয়েছেন সালমান খান, ঋত্বিক রোশন, অলোক নাথ, নানা পটেকর, সংগীতশিল্পী কৈলাশ খের, মডেল জুলফি সৈয়দ, কমেডিয়ান উৎসব চক্রবর্তী ও চলচ্চিত্র প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশিসহ অনেকে।

‘আশিক বানায়া আপনে’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে ২০০৫ সালে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন তনুশ্রী দত্ত। এরপর ‘চকলেট’, ‘রাকিব’, ‘ঢোল’, ‘রিস্ক’, ‘গুড বয়, ব্যাড বয়’, ‘স্পিড’র মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *